ক্ষমতায় না থাকলেও আওয়ামী লীগ পালিয়ে যাবে না : ওবায়দুল কাদের

বাংলাদেশের সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘ক্ষমতায় থাকলেও আমরা আছি, না থাকলেও আছি। ক্ষমতায় না থাকলেও আওয়ামী লীগ পালিয়ে যাবে না। দেশ ও জনগণের রাজনীতি করে যাবে।’

আজ (শুক্রবার) সকালে ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমরা এতদিন ক্ষমতায় আছি, আমরা নির্ভুল, অভ্রান্ত এটা দাবি করি না। আমাদের ভুল-ত্রুটি আছে। তারপরও এটা বলতে পারি, আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি। বিএনপির চেয়ে আমাদের সরকার বেটার সরকার।’

তিনি বলেন, ‘ক্ষমতা আল্লাহর হাতে, জনগণের হাতে। ক্ষমতার দাপট আমরা কোনো দিন দেখাইনি। আমাদের ভুলত্রুটি হতে পারে, এত বড় দল। কিন্তু আমরা অপকর্মকারীকে আনপানিশড যেতে দিইনি। আমাদের যারা অন্যায় করেছে, তাদের কিন্তু আমরা ছাড় দেইনি। আমাদের এমপিরাও জেলে আছেন।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘দুর্নীতি এখন সারা দুনিয়াতেই আছে। এটা এখন ওয়েব লাইভ হয়ে গেছে। কিন্তু আমরা দুর্নীতিকে ছাড় দেইনি। বিএনপি জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষকতা করে। তারা জামায়াতকে মনোনয়ন দিয়েছে এটাই স্বাভাবিক।’

এ সময় আগামী ১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের। নির্বাচনী ইশতেহারে ‘দিন বদলের অভিযান, অদম্য বাংলাদেশ’ গ্রামীন উন্নয়নগুলোকে প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে বলে জানান কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, গ্রামকে শহরে রূপান্তরিত করার কর্মসূচি গুরুত্ব পাবে তাদের ইশতেহারে।

সরকারের বিভিন্ন অর্জন তুলে ধরে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিএনপি দীর্ঘ সময় ধরে ক্ষমতায় থাকলেও কোনো মেগা প্রজেক্ট উপহার দিতে পারেনি; বরং অদূরদর্শিতায় দেশকে পিছিয়ে দিয়েছিল।’

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন এখনো চূড়ান্ত হয়নি জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এবার দলের মনোনয়নের ক্ষেত্রে রাজনীতিকদেরই বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। গতবারের চেয়ে এ সংখ্যা আরো বেড়েছে। সাবেক ছাত্রনেতা যারা তৃণমূল থেকে এসেছেন, তাদের আমরা মনোনয়ন দিয়েছি। সর্বমোট আসন সংখ্যার মধ্যে ১৬-১৭ জন ব্যবসায়ী মনোনয়ন পেয়েছেন। এ ছাড়া ৪০ জনের কাছাকাছি মুক্তিযোদ্ধা, আর নতুন মুখ ৫০-এর কোটা ছুঁতে পারে বলে আমার কাছে মনে হচ্ছে।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনের আগে নিশ্চিত করে বলা যাবে না-কে বিদ্রোহী প্রার্থী। তবে কেউ দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে বিদ্রোহী হলে তাকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হবে বলেও জানান তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন