গাজায় ইসরাইলের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড

ইসরাইলের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে ৫ ফিলিস্তিনি ও এক ইসরাইলি নারীকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন গাজায় হামাসের সামরিক আদালত।

এদের মধ্য ৫ ফিলিস্তিনিকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে এবং ইসরাইলের নারী গুপ্তচরকে ফায়ারিং স্কোয়ার্ডে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের আদেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া একই অভিযোগে আরো ৮ জনকে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন গাজার ওই সামরিক আদালত।

গাজার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আইয়াদআল-বাজম বলেছেন, যারাই ইসরায়েলের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির চেষ্টা করতে চাইবে, এ রায় তাদের জন্য সুস্পষ্ট একটি বার্তা হিসেবে কাজ করবে।

গত ১১ নভেম্বর ইসরাইলের গোয়েন্দা বাহিনী একটি বেসামরিক গাড়িতে করে গাজা উপত্যকায় অনুপ্রবেশ করে চলন্ত গাড়ি থেকে গুলি করে হামাসের সামরিক শাখা ইজ্জাদ্দিন আল-কাসসাম ব্রিগেডের শীর্ষ কমান্ডার শেখ নূর বারাকাকে হত্যা করে।

ওই ঘটনা কেন্দ্র করে গাজা নিয়ন্ত্রণকারী সশস্ত্র গ্রুপ হামাস ২০১৪ সালের যুদ্ধের পর ইসরাইলের সঙ্গে সবচেয়ে ভয়াবহ সহিংসতায় জড়িয়ে পড়ে। হামাসের একটি গাইডেড মিসাইল ইসরাইলের একটি সেনাসদস্য ভর্তি গাড়ি গুঁড়িয়ে দিলে তিন দিন পর ১৩ নভেম্বর দুপক্ষ যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন