নামাজের পর ব্যায়াম করার রীতি চালু করে প্রশংসিত ইমাম

রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের হাদিসের অনুসরণে নামাজের পরে ব্যায়াম শুরু করেছে ইরাকের একটি মসজিদের মুসল্লিরা। ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগের ফলে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছেন ওই মসজিদের ইমাম।

‘শক্তিশালী মুমিন দুর্বল মুমিনের চেয়ে উত্তম’ মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের এই হাদিসটি অনুসরণ করে মুসল্লিদের দেহের শক্তি যোগানো ও ফিটনেস ঠিক রাখার উদ্দেশ্যে ভিন্নধর্মী এই ব্যায়াম-পদ্ধতি চালু করেছেন ইরাকের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় জেলা হালবাজা বেহেশত-মসজিদের ইমাম মাহরিবান হিমা সাঈদ।

মুসল্লিদের নিজ স্বাস্থ্যের প্রতি যত্নশীল করার লক্ষ্যে উৎসাহ প্রদান করতে সপ্তাহে দুইদিন ফজরের নামাজের পরে শরীরচর্চার অভিনব কৌশটি চালু করা হয়েছে জানুয়ারির শুরু থেকে।

বেহেশত-মসজিদের প্রবীণ মুসল্লি আহমদ রউফের মতে, এই যোগব্যায়াম আমাদের শরীর চাঙা ও সতেজ করে তোলে। সপ্তাহের দুইদিন ফজরের নামাজে মসজিদে উৎসবমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

অন্য একজন মুসল্লি বলেন,‘আমাদের সঙ্গে অংশগ্রহণকারীরা তাদের অভিজ্ঞতা নিয়ে খুব খুশি, সবাই এ কার্যক্রমের প্রশংসা করছে এবং এটি চালিয়ে যেতে চায়।’

মসজিদের ব্যতিক্রমী এ আয়োজন আমাদের শারীরিক ও মানসিক প্রফুল্লতা দিচ্ছে।
উত্তর-পূর্ব ইরাকের হালবাজা প্রশাসনিক অঞ্চলটি ইরান সীমান্ত থেকে ১৮ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত।

ইমাম সাঈদের ব্যতিক্রমী এ উদ্যোগ হালবাজা ছাড়িয়ে পুরো ইরাকে প্রশংসিত হয়েছে।

সূত্র: আনাদলু নিউজ

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন