নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলাকারীর অস্ত্র কেড়ে নেন মসজিদের খাদেম

বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন, ০১৭৭৬৭৮৫৪৭৮, ০১৯৬৭৯৭৯০৯৩

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৪৯ জন। এর মধ্যে আল নুর মসজিদে হতাহতের সংখ্যাই বেশি। তবে লিনউড মসজিদে হামলা শুরুর পর এক তরুণ রুখে দাঁড়ানোয় ওই মসজিদে নামাজ পড়তে আসা বহু মুসল্লির প্রাণ রক্ষা পেয়েছে।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড অনলাইনে এ–সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। লিনউড মসজিদ থেকে বেঁচে ফেরা একজন প্রত্যক্ষদর্শীর বর্ণনায় উঠে এসেছে সেই ঘটনা।
প্রত্যক্ষদর্শী ওই ব্যক্তির নাম সৈয়দ মাজহারউদ্দিন।

শুক্রবার জুমার নামাজের সময় ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদ এবং কাছের লিনউড মসজিদে হামলা চালান দুই ব্যক্তি। গুলিতে আল নুর মসজিদে ৪১ জন এবং লিনউডে ৭ জন মুসল্লি ঘটনাস্থলেই নিহত হন। আর হাসপাতালে মারা যান একজন।

সৈয়দ মাজহারউদ্দিন নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডকে বলেন, ওই সময় ৬০ থেকে ৭০ জন মুসল্লি মসজিদে ছিলেন। গুলি শুরু হলে তাঁরা আতঙ্কে ছোটাছুটি শুরু করেন। মাজহারউদ্দিন বলেন, ‘আমি তখন লুকানোর জায়গা খুঁজছিলাম। ওই সময় দেখলাম এক লোক অস্ত্র নিয়ে মসজিদের দরজা দিয়ে ঢুকল। ঢুকেই দরজার কাছে থাকা কয়েকজন বয়স্ক ব্যক্তিকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে।’

প্রত্যক্ষদর্শী মাজহার বলেন, এমন একটা সময় মসজিদের ওই খাদেম রুখে দাঁড়ান। খাদেম সামনে গিয়ে হামলাকারীর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন এবং বন্দুকটা কেড়ে নেন। তিনি হামলাকারীকে ধরার চেষ্টাও করেন। কিন্তু হামলাকারী পালিয়ে যায়। বাইরে থাকা একটি গাড়িতে চড়ে সটকে পড়ে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন