ব্ল্যাক টিকিট বিক্রি বৈধ নয়

মুফতি মুহাম্মদ মর্তুজা

ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে ঈদযাত্রা। একে উপলক্ষ করেই বাস, ট্রেন, বিমান, লঞ্চের সব টিকিট কাউন্টারেই শুরু হয়েছে টিকিট কেনার যুদ্ধ। এ সময় একটি টিকিট কেনা যেন এভারেস্ট জয় করার মতো আনন্দ দেয়। যে করেই হোক প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে হবে। এই আবেগ ও অনুভূতি কাজ করে সবার মাঝে। মানুষের এই আবেগকে পুঁজি করে ব্যবসায় নেমে পড়ে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। কিছু রুটে অস্বাভাবিক হারে ভাড়া বাড়িয়ে দেওয়া হয় আবার কেউ কেউ টিকিট সংকট দেখিয়ে বিভিন্ন দালালের মাধ্যমে দু-তিন গুণ বেশি দামে টিকিট বিক্রি করেন। যেখানে একজন সাধারণ নাগরিক আইন মেনে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে শেষ পর্যন্ত এসে অনেক ক্ষেত্রে টিকিট পান না, সেখানে কালোবাজারের ফাঁকফোকর বোঝেন এমন লোকগুলো মুদি দোকান, পান দোকান, ফ্লেক্সিলোডের দোকান থেকে ব্ল্যাকে টিকিট কিনে শান্তিতে বাড়ি ফিরে যান। অথচ সরকার কিংবা প্রতিষ্ঠানের যেসব আইন কোরআন-হাদিসের সঙ্গে সাংঘর্ষিক নয়, সে আইন মানা প্রত্যেক মুসলমানের কর্তব্য। হজরত আবদুল্লাহ (রা.) রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম থেকে বর্ণনা করেন। তিনি বলেছেন, ‘যতক্ষণ আল্লাহর নাফরমানির নির্দেশ দেওয়া না হয়, ততক্ষণ পছন্দনীয় ও অপছন্দনীয় সব বিষয়ে প্রত্যেক মুসলিমের জন্য তার মান্যতা ও আনুগত্য করা কর্তব্য। যখন নাফরমানির নির্দেশ দেওয়া হয়, তখন আর কোনো মান্যতা ও আনুগত্য নেই।’ বুখারি।

সিন্ডিকেট করে কালোবাজারে টিকিট বিক্রির ফলে একদিকে যেমন জনগণকে তার প্রাপ্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়, অন্যদিকে সরকারি আইনকেও অশ্রদ্ধা করা হয়। তাই জনগণকে জিম্মি করে এসব অবৈধ পন্থায় টিকিট বিক্রি করাকে ইসলাম সমর্থন করে না। আল কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘তোমরা পরস্পরে একে অন্যের সম্পদ অন্যায়ভাবে ভোগ করো না এবং এই উদ্দেশ্যে বিচারকের কাছে এমন কোনো মামলা করো না যে, মানুষের সম্পদ থেকে কোনো অংশ জেনে-শুনে গ্রাস করার গুনাহে লিপ্ত হবে।’ সূরা বাকারা : ১৮৮।

তবে কেউ যদি নিজে যাওয়ার জন্য টিকিট কেনেন, পরে কোনো কারণবশত যাত্রা বাতিল করতে হয় সে ক্ষেত্রে সমপরিমাণ মূল্যে অন্যের কাছে টিকিটটি বিক্রি করার অবকাশ রয়েছে। ফাতাওয়ায়ে ফকিহুল মিল্লাত, খ: ১০, পৃ. ৩৯৩। সাধারণত অধিক মুনাফার আশায় মানুষ এ ধরনের মিথ্যা সংকট সৃষ্টি করে। কিন্তু মিথ্যা পন্থায় উপার্জনের এই অর্থ আমাদের জীবনে উন্নতি এনে দিতে পারবে না। কেননা যেই ব্যবসায় মিথ্যার আশ্রয় নেওয়া হয় আল্লাহ সেই ব্যবসা থেকে বরকত উঠিয়ে নেন। হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি রসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বলতে শুনেছি, ‘মিথ্যা শপথের দ্বারা পণ্যসামগ্রী বিক্রি হয়ে যায় বটে, কিন্তু এর দ্বারা বরকত চলে যায়।’ বুখারি। অন্যদিকে সৎ ও ন্যায়পরায়ণ ব্যবসায়ীদের ব্যাপারে আল্লাহর রসুল বলেন, ‘সততাপরায়ণ বিশ্বস্ত ব্যবসায়ী আখেরাতে নবী, সিদ্দিক ও শহীদদের সঙ্গী হবে।’ তিরমিজি। ব্যবসায়ী ভাইদের প্রতি বিনীত নিবেদন, আপনি কোন পক্ষে যাবেন তা নিজেই ঠিক করুন। আল্লাহ আমাদের শুভবুদ্ধির উদয় ঘটান।

লেখক : প্রাবন্ধিক, গবেষক

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন