মালয়েশিয়ায় সৌদির ‘সালমান সেন্টার’ বন্ধ ঘোষণা

বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন, ০১৭৭৬৭৮৫৪৭৮, ০১৯৬৭৯৭৯০৯৩

মালয়েশিয়ায় অবস্থিত সৌদি বাদশার সন্ত্রাসবিরোধী প্রতিষ্ঠান ‘দ্য কিং সালমান সেন্টার ফর ইন্টারন্যাশনাল পিস’ (কেএসসিআইপি) বন্ধ ঘোষণা করেছে মালয়েশিয়া সরকার। কুয়ালালামপুর অবস্থিত এ কেন্দ্রটি দ্রুত গুটিয়ে নিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে মঙ্গলবার জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষমন্ত্রী মোহাম্মদ সাবু। খবর আল জাজিরার। তবে কেন, আর কী কারণে এটি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে তা বিস্তারিত কিছু জানাননি তিনি।

দেশটির সদ্যবিদায়ী নাজিব রাজাক সরকারের সময়ে প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসাম উদ্দীন হুসেইন সৌদি সমর্থিত এ কেন্দ্রটি প্রতিষ্ঠায় সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছিলেন। ২০১৭ সালে সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ এ কেন্দ্রটি উদ্বোধন করেছিলেন। কুয়ালালামপুরে একটি অস্থায়ী ভবনে এর কার্যক্রম চলছিল, যা খুবই দ্রুত পুত্রজায়াতে একটি স্থায়ী ভবনে স্থানান্তর হওয়ার কথা।

কিন্তু দেশটির জাতীয় নির্বাচনে নাজিব রাজাক সরকারের বিদায়ের পর মাহাথির মুহাম্মদের নেতৃত্বে ক্ষমতায় আসে আনোয়ার ইব্রাহিমের দল। এরপরই ইয়েমেন সৌদি জোটের আগ্রাসন নিয়ে সরব হয় মালেশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সাবু। মালয়েশিয়ার সেনাদের তিনি সৌদি জোটে থাকার বিষয় নতুন করে ভাবা হবে বলে ঘোষণা দেন।

এর আগে ২০১৫ সালে প্রধানমন্ত্রীর নাজিব রাজাক সৌদি আরবে সেনা পাঠান। মালয়েশিয়ার ঠিক কী পরিমাণ সেনা সৌদিতে পাঠানো হয়েছিল তার প্রকাশ করা হয়নি। পরবর্তীতে ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসনের ফলে সেখানে মালয়েশিয়ার সেনা পাঠানোর সিদ্ধান্ত চরম বিতর্কের মুখে পড়ে। দেশটির সাধারণ মানুষ ও মানবাধিকারকর্মীরা এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করে। তবে বর্তমান প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, সৌদি আরবে মালয়েশিয়ার যেসব সেনা রয়েছে তারা কোনো দেশের ওপর হামলায় অংশ নেয় না।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সাল থেকে সৌদি আরবের নেতৃত্বে ইয়েমেনে সেনা অভিযান চালানো হচ্ছে। ইতিমধ্যে দেশটির বহু মানুষ নিহত হয়েছে। কয়েকবার সেখানে নানা রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে।

জেবিএস/

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন