মিশরে পর্যটক বাসে হামলার পর অভিযানে নিহত ৪০

মিসরের পিরামিডের কাছে পর্যটকবাহী বাসে চালানো হামলার পর নিরাপত্তা অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। অভিযানে এ পর্যন্ত ৪০ জন ‘সন্ত্রাসী’কে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। খবর বিবিসির।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, শনিবার সকাল থেকে উত্তর সিনাইয়ের অভিযান শুরু করা হয়।

মিসরীয় কর্তৃপক্ষের দাবি, সন্ত্রাসীরা বিভিন্ন পর্যটন স্পট, গির্জা ও সামরিক কর্মকর্তাদের ওপর হামলার পরিকল্পনা করছিলো। অভিযানের মাধ্যমে তাদের পরিকল্পনা নস্যাৎ করা হয়েছে।

শুক্রবার মিশরে গিজা পিরামিডের কাছে একটি পর্যটন বাসে বোমা বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৪ জন নিহত হয়েছে। গুরুতর আহত হয় আরো ১১ জন।

মিশরীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আহমেদ হাফেজ এই হামলাকে সন্ত্রাসবাদ বলে অভিহিত করেছেন। তবে হামলার দায় কেউ স্বীকার করেনি।

এর আগে ২৫ শে ডিসেম্বরও উত্তর সিনাইয়ের আল-আরিশে ব্যাপক নিরাপত্তা চালিয়েছিলো মিসরের নিরাপত্তা বাহিনী। এতে ১৪ জন ‘সন্ত্রাসী’ নিহত হয়। এ অভিযানের পর পিরামিডের কাছে পর্যটক বাসে হামলা চালানো হলো।

তুর্কি বার্তা সংস্থা আনাদোলুর খবরে বলা হয়, ২০১৩ সালের মাঝামাঝি সময়ে মিশরের প্রথম অবাধ নির্বাচনে জয়ী প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসিকে সেনা অভ্যুত্থানে উৎখাতের পর থেকে সিনাই উপদ্বীপে উগ্রপন্থা বেড়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন