রাখাইনকে বাংলাদেশের অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাব যুক্তরাষ্ট্রে

ডেইলি ইসলাম : মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যকে দেশটি থেকে আলাদা করে দিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্ত করার সম্ভাবনার কথা বিবেচনার জন্য পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদের এশিয়া প্রশান্ত-মহাসাগরীয় উপকমিটির চেয়ারম্যান ব্রাড শেরম্যান। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র কি রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে এমন একটি অবস্থান নিতে পারে না যে, মিয়ানমার যদি রাখাইনের মুসলমান নাগরিকদের যথাযথ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে না পারে, আমরা রাখাইনকে বাংলাদেশের সঙ্গে যুক্ত করার বিষয়টিতে সমর্থন দেব? মিয়ানমান তাদের যথাযথ অধিকার আদায়ে ব্যর্থ হলে তাদের দায়িত্ব নেওয়া বাংলাদেশের সঙ্গে রাখাইনকে জুড়ে দেওয়াই তো যৌক্তিক পদক্ষেপ।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে পররাষ্ট্র দপ্তরের দক্ষিণ এশিয়ার জন্য বাজেটবিষয়ক শুনানিতে এ আহ্বান জানান তিনি। তিনি বলেন, বাংলাদেশ একটি দরিদ্র দেশ হয়েও রোহিঙ্গাদের দায়িত্ব নিয়েছে।

১৩ জুন অনুষ্ঠিত ওই শুনানির সূচনা বক্তব্যে ব্রাড শেরম্যান বলেন, সুদান থেকে দক্ষিণ সুদানকে আলাদা করে একটি নতুন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠাকে যুক্তরাষ্ট্র যদি সমর্থন করতে পারে, তাহলে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের রোহিঙ্গাদের নাগরিক অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য কেন একই ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া যাবে না? সুদানের চেয়েও রোহিঙ্গাদে অবস্থা গুরুতর। সুদানে সেখানকার নাগরিকদের নাগরিকত্ব ছিল। কিন্তু মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব অস্বীকার করছে, তাদের পাসপোর্ট দেওয়া হয় না এবং অন্যান্য অধিকার থেকেও তারা বঞ্চিত। ব্রাড শেরম্যানের ভেরিফায়েড টুইটার একাউন্টে তিনি তার সে বক্তেব্যের পোস্ট করেছেন। ২৪ মিনিট ৫৬ সেকেন্ডের সে শুনানির বক্তব্যে তিনি পাকিস্তান, ভারতসহ দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশের সমস্যা নিয়ে কথা বলেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন