২৫ জুলাই জাতীয় ওয়ায়েজিন পরিষদের সিরাত মাহফিল; থাকবেন আল্লামা শফী ও বাবুনগরী

ডেইলি ইসলাম: বাংলাদেশের ওয়ায়েজদের জাতীয় সংগঠন জাতীয় ওয়ায়েজিন পরিষদ বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক সিরাত মাহফিল আগামী ২৫ জুলাই রাজধানী ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে। এতে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা আহমাদ শফী ও মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীসহ দেশে বিদেশের ইসলামী চিন্তাবিদি ও সিরাত গবেষকগণ উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখবেন।

আজ ৩০ জুন সংগঠনটির শীর্ষ নেতৃবৃন্দ শাইখুল ইসলাম আল্লামা আহমাদ শফী ও আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীর সঙ্গে সরাসরি সাক্ষাৎ করে তাদের পরামর্শক্রমে এ সিদ্ধান্ত নেন।

জাতীয় ওয়ায়েজীন পরিষদ বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দসহ প্রায় শতাধিক ওয়ায়েজীনে কেরাম শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী এবং আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীর সঙ্গে দেখা করতে চট্টগ্রামের হাটহাজারী যান। সকাল ৯টার দিকে তারা দুই শায়েখের আলাদা আলাদা সাক্ষাৎ করেন। এ সময় তারা শইখবৃন্দকে দাওয়াত দিলে তা কবুল করেন এবং উভয় হযরতের সম্মতিক্রমে আগামী ২৫ জুলাই বৃহস্পতিবার রাজধানী ঢাকায় আন্তর্জাতিক সীরাত মাহফিল আয়োজনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

সাক্ষাৎকালে আল্লামা আহমদ শফী ওয়ায়েজীনদেরকে বলেন, ওয়ায়েজীনরা সর্বদা আল্লাহ প্রদত্ত যোগ্যতাকে তাদের প্রতি আল্লাহর বিশেষ অনুগ্রহ মনে করে ইখলাসের সাথে দীনের দা’য়ীর ভূমিকা পালন করবেন। কুরআন, হাদিস এবং হক্কানী বুযুর্গদের জিন্দেগির শিক্ষনীয় আমলী ঘটনাবলী এবং প্রয়োজনে মাঝেমধ্যে শিক্ষামূলক শের (কবিতা/গজল‌) উপস্থাপনের মাধ্যমে দাওয়াতী কাজ চালানোর পরামর্শ দেন।

তিনি সর্বপ্রকার ফালতু বানোয়াট কিচ্ছা কাহিনী বর্জন করে সমকালীন প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা সম্বলিত বিষয়ের উপর আলোচনা করা। টাকা-পয়সা অর্থের কিংবা স্বার্থের লোভ পরিহার করে আল্লাহর ওয়াস্তে সত্য তথা হক প্রকাশের মাধ্যমে দীনি দাওয়াতি কাজ চালানোর জন্য বিশেষ নসিহত প্রদান করেন।

তিনি বলেন, আমি আমার জীবনটা বাতিলের বিরুদ্ধে জিহাদের ময়দানে বিলিয়ে দিয়েছি। আপনারাও- কাদিয়ানী, আহলে হাদিস ও বিদ’আতীসহ সকল ভন্ডদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় সোচ্চার ভূমিকা পালন করবেন।

পৃথক সাক্ষাৎকারে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, জাতীয় ওয়ায়েজীন পরিষদ নামটির মধ্যে বিশেষ আকর্ষণ ও সার্থকতা রয়েছে, এ নামটি আমাকে মুগ্ধ করেছে। আমি আপনাদের সাথে সবসময় আছি এবং থাকবো ইনশাল্লাহ। আপনারা যখন আমাকে ডাকবেন আপনাদের সাথে পাবেন।

হজরতদ্বয়ের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে উপস্থিত ছিলেন, আল্লামা মুজিবুর রহমান চাটগামী, মাওলানা আজহারুল ইসলাম আজমী, মাওলানা মাজহারুল ইসলাম রাশেদী, মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, মুফতি লুৎফুর রহমান মারুফ, মাওলানা নুরুল আমিন আল ফরিদী, মুফতি হামিদুর রহমান সাঈফী, মুফতি মাওলানা সালমান সাকি, মুফতি মাহবুবুর রহমান নবাবগঞ্জী, মাওলানা গাজী সিদ্দিকুর রহমান, মুফতি কেফায়াতুল্লাহ সাহেব, মুফতী আঃ রহীম হেলালী, মুফতি শামসুল হক ওসমানী, মুফতি হেদায়েতুল্লাহ গাজীসহ সংগঠনটির বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন