সুবর্ণচরের ঘটনায় আ.লীগকে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে : ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘নির্বাচনের আগে ও পরে যে ধরনের নৃশংসতা হয়েছে তা ইতিহাসে বিরল। নোয়াখালীর সুবর্ণচরে যে ঘটনা ঘটেছে, এটা যারা ঘটিয়েছে এবং এর পেছনে যারা রয়েছে তাদের প্রত্যেকের বিচার করতে হবে। আওয়ামী লীগকে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে।’

গত ৩০ ডিসেম্বর রাতে সুবর্ণচরে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার নারীকে দেখতে গিয়ে শনিবার (৫ জানুয়ারি) দুপুরে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে এসব কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘নির্বাচনের নামে দেশে যে প্রহসন হয়েছে এটা দেশকে গণতন্ত্রহীনতা এবং অন্ধকার যুগে ফিরিয়ে নিয়ে যাবে। এটা জনগণের সঙ্গে এক ধরনের প্রতারণা ও প্রহসন। জনগণ তা মেনে নেয়নি ও মেনে নেবেও না।’

মির্জা ফখরুলের সঙ্গে ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের মধ্যে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে উপস্থিত ছিলেন আ স ম আবদুর রব, আব্দুল কাদের সিদ্দিকী, ব্যারিস্টার এ এম মাহবুবউদ্দিন খোকন, বরকতউল্লাহ বুলু, মো. শাহজাহান, শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানী প্রমুখ।

আজ বিকাল বিকাল ৩টায় জেলা আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে বিএনপির নেতাকর্মী ও সাংবাদিকদের সঙ্গে মির্জা ফখরুলের মতবিনিময় সভা করার কথা রয়েছে।

এর আগে শনিবার সকাল ৭টা ২৫ মিনিটে গুলশান থেকে বিএনপি নেতারা সুবর্ণচরের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন। পথে কুমিল্লায় যাত্রাবিরতিকালে তারা স্থানীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন