ধর্মীয় উসকানির মামলায় খালেদাকে গ্রেফতার দেখানোর নির্দেশ

গ্রেপ্তারকৃত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ধর্মীয় উসকানির মামলায় গ্রেফতার দেখানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
বৃহস্পতিবার (১৪-০৩-২০১৯) ঢাকা মহানগর হাকিম জিয়াউর রহমান এ আদেশ দেন।

ওই মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জারি করা গ্রেফতারি পরোয়ানা তামিল সংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য গুলশান থানা পুলিশকে এ নির্দেশ দেন আদালত।

এদিন এ মামলায় খালেদা জিয়ার হাজিরের লক্ষ্যে প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট জারিসহ জামিন আবেদন করেন তাঁর আইনজীবী মো. মাসুদ আহমেদ তালুকদার।

শুনানিতে তিনি বলেন, শুধুমাত্র রাজনৈতিক হয়রানির উদ্দেশ্যে খালেদা জিয়াকে এ মামলায় আসামি করা হয়েছে। তিনি নিরপরাধ। আর যে অভিযোগে মামলা করা হয়েছে, সেখানে বিক্ষুব্ধ ব্যক্তি মামলা করেনি। মামলার বাদী সরকারি সংস্থারও কেউ নন। এ মামলায় তার জামিন প্রার্থনা করছি।

অপরদিকে বাদীপক্ষে আইনজীবী আবুল কালাম আজাদ শুনানিতে বলেন, তিনি (খালেদা জিয়া) শেখ হাসিনা ও বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করেছেন। দেশের মানুষ শান্তিপূর্ণভাবে নিজ নিজ ধর্ম পালন করছেন। মামলাটি জামিন অযোগ্য ধারার।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ১৪ অক্টোবর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে হিন্দু সম্প্রদায়ের শুভ বিজয়ার অনুষ্ঠানে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন খালেদা জিয়া।

এ সময় তিনি আওয়ামী লীগ সম্পর্কে কটূক্তিপূর্ণ সমালোচনা করেন। বক্তৃতার একপর্যায়ে খালেদা জিয়া বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সব ধরনের মানুষের ওপর আঘাত করে। আর লোক দেখানো ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান দখল করে নেয়। ধর্মনিরপেক্ষতার মুখোশ পরা এ জবরদখলকারী সরকারের হাতে কোনো ধর্মের মানুষই নিরাপদ নয়।’

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন