নিউইয়র্কের টাইমস স্কয়ারে ইসলামফোবিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ

পশ্চিমা দেশগুলোতে ইসলাম বিদ্বেষ বাড়েই চলছে। মাঝে মাঝেই ঘটছে হামলার ঘটনা। ঠিক সেই মুহূর্তে নিউইয়র্কের টাইমস স্কয়ারে ইসলামফোবিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছে নানা ধর্মের হাজারো মানুষ। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলের মুখেই ছিল শান্তির স্লোগান।

পদযাত্রায় যোগ দিয়েছিলো মুসলিম, খৃষ্টান ও ইহুদিসহ বিভিন্ন মতের মানুষ।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে ভয়াবহ হামলার প্রতিবাদ জানাতে ওই সমাবেশ ও র‌্যালির আয়োজন করা হয়।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, ইসলামফোবিয়ার কারণে বিভিন্ন দেশে মুসলিমদের ওপর হামলা হচ্ছে। আমরা এ সংস্কৃতির পরিবর্তন চাই। এ জন্য বিভিন্ন ধর্মের লোকজন এ প্রতিবাদে সমাবেত হয়েছে।

সমাবেশে অংশ নেয়া তুর্কি-মার্কিন ন্যাশনাল স্টিয়ারিং কমিটির চেয়ারম্যান খলিল মুতলু জানান, পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে লাখো মানুষ ইসলামফোবিয়ার বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলছে। নির্বিচারে মুসলিম হত্যার প্রতিবাদে জানিয়েছেন সবাই। সম্মিলিত এ প্রতিবাদ ও সংহতি ঘৃণাচর্চার অবসান ঘটাবে।

এ সময় খৃস্টান পাদ্রী রবার্ট জনসন ক্রাইস্টচার্চে হামলায় নিহতদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বলেন, আমরা মুসলিম সম্প্রদায়ের দুঃখে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছি। এটি আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। যে কোনো সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডই ভুল এবং ক্ষতিকর। এটি কোনো ধর্মের সঙ্গে নির্দিষ্ট নয়।

এদিকে পৃথকভাবে হোয়াইট হাউসের সামনেও ইসলামফোবিয়ার বিরুদ্ধে শতাধিক মানুষ বিক্ষোভ করেছে। ট্রাম্প প্রশাসনের ইসলামফোবিয়া বিষয়ক মনোভাবের প্রতিবাদ জানান তারা। সূত্র: টিআরটি

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন