সৌদি আরবে বাস দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি হাজী নিহত, আহত ১৭ জন

সৌদি আরবে বাংলাদেশি হাজীদের বহনকারী একটি বাস দুর্ঘটনায় একজন নিহত ও ১৭ জন আহত হয়েছেন। বিষয়টি শনিবার গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাসের উপ-রাষ্ট্রদূত নজরুল ইসলাম। নিহত হাজীর নাম নুরুল ইসলাম (৭০)। তার বাড়ি ফেনীর লস্করহাটে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সিলর (হজ) মাকসুদুর রহমান এসএমএসে জানান, শনিবার স্থানীয় সময় বেলা সোয়া ১১টায় মদিনা থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরে ওয়াজুল ফারা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। হজ পালনের পর মদিনায় মহানবীর (সা.) কবর জিয়ারতে যাচ্ছিলেন ওই বাংলাদেশিরা। বাসের চাকা ফেটে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বাসটিতে ৩৫ জন ছিলেন।

তারা স্কাই এয়ার ট্রাভেলস (লাইসেন্স নং-১২০৫) নামক হজ এজেন্সির মাধ্যমে হজে গিয়েছিলেন। আহত চারজনকে ওয়াজুল ফারা হাসপাতাল, আটজনকে কিং ফাহাদ হাসপাতাল, সাতজনকে মিকাত হাসপাতালে এবং দু’জনকে ওহুদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর। সৌদি আরবে অবস্থানরত এজেন্সি মালিকদের সংগঠন হাব’র সভাপতি এম শাহাদত হোসাইন তসলিম শনিবার গণমাধ্যমকে বলেন, বাংলাদেশি হাজীদের বহনকারী বাস মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মোট ১৭ জন আহত হয়েছেন। ১ জন হাজী ঘটনাস্থলে মারা যান। আহতদের মধ্যে ৭ জনের অবস্থা গুরুতর। চলতি বছর হজে গিয়ে ৮২ জন বাংলাদেশি হজযাত্রী মারা গেছেন বলে হজ অফিস সূত্র জানিয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন