ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের জন্য ১১৮ মিলিয়ন ডলার

জাতিসংঘের ফিলিস্তিনি শরণার্থী সংস্থা ইউএনআরডব্লিউএকে তুরস্কসহ কয়েকটি দেশ ১১৮ মিলিয়ন ডলার প্রদান করবে।

বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানান জর্ডানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। খবর তুরস্কের গণমাধ্যম ডেইলি সাবাহর।

সম্প্রতি ইউএনআরডব্লিউএ শরণার্থী সংস্থাকে অর্থ সহায়তা দেয়া বন্ধ করে দিয়েছে সবচেয়ে বড় দাতা দেশ আমেরিকা। দেশটি বছরে প্রায় ২০০ মিলিয়ন ডলার ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের জন্য প্রদান করতো।

ঘাটতি পূরণে অতিরিক্ত অর্থ প্রদান করতে এগিয়ে এসেছে তুরস্ক, জার্মানি, সুইডেন, জাপান ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

দেশগুলো চলমান জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনের অবকাশে এ বিষয়ে এক বৈঠকে মিলিত হয় বলে সংবাদ সম্মেলনে জানান জর্ডানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আইমান সাফাদি।

ইউএনআরডব্লিউএ সংস্থার প্রধান পিয়েরে ক্রাহেনবুল বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কে বলেন, নতুন প্রতিশ্রুতি আসায় ঘাটতির পরিমাণ ১৮৬ মিলিয়ন ডলার থেকে ৬৮ মিলিয়ন ডলারে নেমে এসেছে।

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত ক্যাভুসোগলু এ বিষয়ে বলেন, আমেরিকা অর্থ দেয়া প্রত্যাহার করায় তুরস্ক এবং অন্যান্য দেশ ফিলিস্তিনিদের সহায়তায় এগিয়ে এসেছে।

এর আগে ফিলিস্তিনের সমস্যার রাজনৈতিক সমাধানের পাশাপাশি মানবিক সাহায্যে এগিয়ে আসার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে আহ্বান করেছিলেন প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস।

এছাড়া ইসরাইলের প্রতি পক্ষপাতমূলক আচরণ করার জন্য আমেরিকার কড়া সমালোচনা করেন মাহমুদ আব্বাস। একক মধ্যস্থতাকারী হিসেবে আমেরিকা তার যোগ্যতা হারিয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

গত বছর আমেরিকা ৩৬৫ মিলিয়ন ডলার অর্থ সহায়তা করেছিল ইউএনআরডব্লিউএকে। কিন্তু দেশটি প্রথমে অর্থ সহায়তা কমিয়ে দেয় এবং পরবর্তীতে একেবারে বাতিল করে।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দাবি করেন যে, সংস্থাটি শরণার্থীদের পুঁজি করে প্রতারণা করছে।

এছাড়া বিভিন্ন দেশে ৫০ লাখ ফিলিস্তিনি শরণার্থী থাকার বিষয়টিকেও ট্রাম্প মেনে নিতে রাজি হননি।

৭০ বছর আগে যারা ফিলিস্তিন ভূখন্ড ছেড়ে বিভিন্ন দেশে আশ্রয় নিয়েছিল শুধুমাত্র তাদেরকে তিনি শরণার্থী বলেছেন।

যেসব ফিলিস্তিনি গত ৭০ বছরে অন্যান্য দেশে জন্মগ্রহণ করেছে তাদেরকে সেসব দেশের নাগরিকত্ব দিতে ট্রাম্প আহ্বান করেন।

ট্রাম্পের দৃষ্টিতে মাত্র ৪০ হাজার ফিলিস্তিনি শরণার্থী রয়েছে।

জর্ডান, লেবানন, সিরিয়া ও গাজায় আশ্রয় নেয়া ৫০ লাখ ফিলিস্তিনি শরণার্থীকে ইউএনআরডব্লিউএ শিক্ষা, স্বাস্থ্য, খাদ্য ও অন্যান্য সামাজিক সেবা প্রদান করে থাকে।

জেএস/

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন