রাসুলের সীরাত আমার জীবন বদলে দিয়েছে : ইমরান খান

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, ‘আমি একজন নামে মাত্র মুসলমান ছিলাম। বাবা আমাকে ডেকে ডেকে জুমা পড়তে নিয়ে যেতেন। যখন রাসুল (সা.) এর সীরাত পড়া শুরু করলাম, তখন থেকেই আমার জীবনে পরিবর্তন আসতে শুরু করল।’

মঙ্গলবার (২০ নভেম্বর) ইসলামাবাদে এক সীরাত সেমিনারে বক্তব্য প্রদানকালে ইমরান খান এ কথা বলেন।

পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি যখন ক্রিকেট খেলছিলাম তখন বশির নামের একজন ‍বুজুর্গের সাথে সাক্ষাৎ হয়। তিনি আমাকে দ্বীনের প্রতি উদ্বুদ্ধ করতেন। তিনি আমার ঈমানী রাস্তার সমস্যাগুলো দূর করেছেন। তিনি বলতেন, ‘‘কোরআনের সঠিক বুঝ অন্তরে তখনই আসবে, যখন অন্তরে ঈমানের আলো থাকবে।’’

ইমরান খান বলেন, ‘আমরা উচ্চ শিক্ষাতে বিশেষ করে তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ে রাসুলের সীরাতকে পাঠ্যসূচিতে অন্তর্ভুক্ত করেছি। বদর যুদ্ধের ১১ বছর পর রোমানরা খালিদ ইবনে ওয়ালিদের পায়ের নিচে এসে পতিত হয়। রাসুল (সা.) এত মহান নেতা ছিলেন যে মাত্র ১১ বছরে মুসলমানদেরকে পরাশক্তিতে পরিণত করেছেন। বিজ্ঞানীরা রিসার্চ করা শুরু করেছেন, রাসুল (সা.) কীভাবে এত দ্রুত মানুষকে পরিবর্তন করেছেন!’

তিনি বলেন, ‘আমি বর্তমান যুবকদের উদ্দেশ্যে বলবো, রাসুল (সা.) কীভাবে সাধারণ মানুষকে মহামানবে পরিণত করেছেন তা অনুসরণ করুন। এ পর্যন্ত কোনো মানুষ এমন করে দেখাতে পারেননি যা আমাদের নবী করে গেছেন।’

ইমরান খান আরো বলেন, ‘আমি বিশ্বের দেশে দেশে মানুষকে রাসুল (সা.)-এর আদর্শে উজ্জীবিত করার লক্ষ্যে সেমিনার করার আবেদন করব। প্রতি বছর আমরা বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করব, যেখানে বিদেশি স্কলারগণ উপস্থিত হবেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন