পবিত্র কোরআনে জিকিরের ১০টি অর্থ

মাওলানা কাসেম শরীফ

২৮. (আল্লাহর দিকে অভিমুখী হেদায়েতপ্রাপ্ত লোক তারাই) যারা ঈমান আনে এবং আল্লাহর স্মরণে যাদের চিত্ত প্রশান্ত হয়। জেনে রেখো, আল্লাহর স্মরণেই শুধু চিত্ত প্রশান্ত হয়।

(সুরা : রাদ, আয়াত : ২৮)

তাফসির : আলোচ্য আয়াতে বলা হয়েছে, আল্লাহর জিকির ও স্মরণে অন্তর প্রশান্ত হয়। পবিত্র কোরআনে জিকির শব্দটি বহু জায়গায় এসেছে। কিন্তু বেশির ভাগ স্থানে পৃথক পৃথক অর্থে এ শব্দের ব্যবহার হয়েছে। এক বর্ণনা মতে, পবিত্র কোরআনে জিকির শব্দ সর্বমোট ২৬৮ বার এসেছে। এর মধ্যে ১৫৪ বার এসেছে ক্রিয়া (ফেয়েল) হিসেবে আর ১১৪ বার এসেছে বিশেষ্য (ইসম) হিসেবে। (সূত্র : ইসলাম ওয়েব, ‘লফযুজ জিকরি ফিল কোরআন’)

বিভিন্ন অর্থে জিকির শব্দের ব্যবহার

জিকির শব্দের প্রথম ও প্রধান অর্থ হলো মৌখিকভাবে আল্লাহর স্মরণ বা জিহ্বার জিকির। যেমন—আল্লাহ বলেন, ‘যখন তোমরা নামাজ সমাপ্ত করবে তখন দাঁড়িয়ে, বসে ও শুয়ে আল্লাহর জিকির (তাসবিহ-তাহলিল) পাঠ করবে। ’ (সুরা : নিসা, আয়াত : ১০৩)। অন্য আয়াতে এসেছে, ‘হে ঈমানদাররা, তোমরা বেশি বেশি আল্লাহর জিকির করো এবং সকাল-সন্ধ্যায় আল্লাহর পবিত্রতা ও মহিমা ঘোষণা করো।

’ (সুরা : আহজাব, আয়াত : ৪১)

জিকির শব্দের দ্বিতীয় অর্থ হলো, উপদেশ ও শিক্ষা গ্রহণ। আল্লাহ বলেন, ‘তুমি উপদেশ দিতে থাকো। কেননা জিকরা বা উপদেশ ঈমানদারদের উপকারে আসে। ’ (সুরা : জারিয়াত : আয়াত : ৫৫)

জিকির শব্দের তৃতীয় অর্থ হলো স্মরণ করা। পবিত্র কোরআনে এসেছে : ‘তারা কোনো অশ্লীল কাজ করে ফেললে কিংবা নিজেদের ওপর অবিচার করলে আল্লাহর জিকির করে (আল্লাহকে স্মরণ করে) এবং নিজেদের পাপের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করে। আল্লাহ ছাড়া কে পাপ ক্ষমা করবে?’ (সুরা : আলে ইমরান, আয়াত : ১৩৫)

জিকির শব্দের চতুর্থ অর্থ আনুগত্য। আল্লাহ বলেন, “তোমরা আমার জিকির (আনুগত্য প্রদর্শন) করো, আমিও তোমাদের ‘জিকির’ (প্রতিদান দান) করব। ”

জিকির শব্দের পঞ্চম অর্থ কোরআন। মহান আল্লাহ বলেন, ‘এটা বরকতময় জিকির (কোরআন)। আমি তা অবতীর্ণ করেছি। তবু কি তোমরা তা অস্বীকার করবে?’ (সুরা : আম্বিয়া, আয়াত : ৫০)

জিকিরের ষষ্ঠ অর্থ মর্যাদা ও গৌরব। আল্লাহ বলেন, ‘কোরআন তো তোমার ও তোমার জাতির জন্য জিকির বা সম্মানের বস্তু। ’ (সুরা : জুখরুফ, আয়াত : ৪৪)

জিকির শব্দের সপ্তম অর্থ খবর ও সংবাদ। আল্লাহ রাব্বুল আলামিন বলেন, ‘তারা তোমার কাছে জুলকারনাইন সম্পর্কে জিজ্ঞেস করে। বলে দাও, আমি তোমাদের কাছে তার জিকির (খবর বর্ণনা) করব। ’ (সুরা : কাহ্ফ, আয়াত : ৮৩)

জিকির শব্দের অষ্টম অর্থ শরিয়ত। পবিত্র কোরআনে এসেছে, ‘যে ব্যক্তি তার প্রতিপালকের জিকির (শরিয়ত) থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়, তিনি তাকে দুঃসহ আজাবে প্রবেশ করাবেন। ’ (সুরা : জিন, আয়াত : ১৭)

জিকির শব্দের নবম অর্থ লাওহে মাহফুজ (সংরক্ষিত ফলক)। আল্লাহ বলেন, ‘আমি জিকির বা লাওহে মাহফুজের পর কিতাবে লিখে দিয়েছি, আমার যোগ্যতাসম্পন্ন (অথবা নেককার) বান্দারা পৃথিবীর অধিকারী হবে। ’ (সুরা : আম্বিয়া, আয়াত : ১০৫)

জিকির শব্দের দশম অর্থ নামাজ। হজরত দাউদ (আ.)-এর ঘটনা প্রসঙ্গে কোরআনে এসেছে, ‘সে বলল, আমি তো আমার প্রতিপালকের জিকির (নামাজ) থেকে বিমুখ হয়ে ঐশ্বর্যপ্রীতিতে মগ্ন হয়ে গেছি। এদিকে সূর্য অস্তমিত হয়ে গেছে। ’ (সুরা : সাদ, আয়াত : ৩২)

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন