ঢাকার বাতাসে রোগের ছড়াছড়ি

গোটা বিশ্বের তিন হাজার ৯৫টি শহরের মধ্যে সবচেয়ে দূষিত ৩০টি শহর। এর মধে ২২টি ভারতের। পাকিস্তানের দুটি। চীনের পাঁচটি। আর বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার নামও এই তালিকায় রয়েছে। দূষণে শীর্ষ ৩০-এ ঢাকার অবস্থান ১৭তম। আন্তর্জাতিক পরিবেশবাদী সংগঠন গ্রিনপিস ও এয়ার ভিজ্যুয়াল গবেষণা করে গত সোমবার ২০১৮ সালের এ সূচক প্রকাশ করেছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঢাকার বাতাসে যে মাত্রার ক্ষতিকর উপাদান রয়েছে, তা খুবই ‘অস্বাস্থ্যকর’ মাত্রা নির্দেশ করছে।

বাতাসে যেসব উপাদান রয়েছে, তার মধ্যে মানবদেহের জন্য সবচেয়ে ক্ষতিকর বলা হয় পার্টিকুলেট ম্যাটার ২ দশমিক ৫ বা পিএম ২ দশমিক ৫ নামে পরিচিত এক ধরনের সূক্ষ্ম কণার উপস্থিতিকে। কঠিন ও তরলের এই মিশ্রণ, ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ফোঁটা আকারে বাতাসে ভেসে বেড়ায়। চুল যতটুকু চওড়া, এই এতটুকু জায়গার মধ্যেই ৪০টি পিএম ২ দশমিক ৫ কণা সহজেই এঁটে যাবে। ক্ষুদ্র হওয়ায় বাতাসের এই কণা খুব সহজেই নিঃশ্বাসের মাধ্যমে আমাদের শরীরে প্রবেশ করে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, সহনীয় মাত্রার চেয়ে বেশি হলে এই ক্ষুদ্র কণার কারণেই ফুসফুসের ক্যান্সার, হার্ট অ্যাটাক, অ্যাজমা, ব্রংকাইটিসসহ শ্বাসপ্রশ্বাসজনিত বিভিন্ন রোগ হতে পারে।
সন্দেহ নেই যে একদিকে বৈষয়িক উন্নতি হচ্ছে, অন্যদিকে পৃথিবীই যেন মানুষের বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন