রাসুল সা. ও ইসলাম নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করায় ১০ বছরের কারাদণ্ড

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সা.) এবং ইসলাম নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করার দায়ে এক ব্যক্তিকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন মালয়েশিয়ার একটি আদালত। একই ধরনের অভিযোগে আরও তিনজনকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

মুসলিম-সংখ্যাগরিষ্ঠ মালয়েশিয়ায় ইসলামের অবমাননার বিরুদ্ধে এই শাস্তিকে সবচেয়ে কঠোর বলে ধারণা করা হচ্ছে। সম্প্রতি দেশটিতে ধর্মীয় এবং জাতিগত উত্তেজনা বৃদ্ধি পেয়েছে।

মালয়েশিয়া পুলিশের মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ ফুজি হারুন বলেছেন, সোস্যাল নেটওয়ার্কের অপব্যবহার করে ইসলাম ও হযরত মোহাম্মদ (সা.) সম্পর্কে আপত্তিকর মন্তব্য করার দায়ে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ১০টি অভিযোগ গঠন করা হয়েছে।

এই অভিযোগের প্রত্যেকটির শাস্তি এক বছরের কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার রিঙ্গিত জরিমানা। এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, এ সাজা ধারবাহিকভাবে কার্যকর হবে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের অপর এক ব্যবহারকারীকেও দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। আগামী সোমবার তার বিরুদ্ধে আদালতে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া অপর দু’জনের বিরুদ্ধে এখনো অভিযোগ গঠন করা হয়নি। তবে কোনো ধরনের জামিন ছাড়াই তারা আটক থাকবে।

এই চারজনের বিরুদ্ধে জাতিগত অসম্মান, উসকানি এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের নেটওয়ার্কের অপব্যবহারের অভিযোগ আনা হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের অপব্যবহার করে কোনো ধরনের উসকানিমূলক বার্তা, ছবি শেয়ার কিংবা আপলোড না করতে জনসাধারণকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার দেশটির ধর্মীয় কল্যাণ বিষয়ক মন্ত্রী মুজাহিদ ইউসুফ রাওয়া বলেন, ইসলাম এবং নবী সম্পর্কে আপত্তিকর লেখা এবং পর্যবেক্ষণের জন্য ইসলামী কল্যাণ বিষয়ক বিভাগ একটি পর্যবেক্ষক ইউনিট গঠন করেছে। তিনি বলেছেন, ধর্মকে অবমাননা করে এমন কোনো বিষয়ের সঙ্গে আপোষ করবে না মন্ত্রণালয়।

সূত্র : রয়টার্স

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন