১৬ বছরের গ্রেটা নোবেল পুরস্কারের জন্য মনোনীত

পরিবেশ রক্ষার তাগিদে যুবসমাজকে অনুপ্রাণিত করতে একা কাজ শুরু করেছিল গ্রেটা থানবার্গ। গত আগস্টে তার শুরু করা সেই ‘‌ইয়ুথ স্ট্রাইক’‌ আন্দোলন সুইডেন থেকে ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের ১০৫ দেশের ১৬৫৯টি শহরে। কয়েক লাখ তরুণ বর্তমানে সুইডেনের এই ছোট্ট মেয়েটির পাশে দাঁড়িয়ে পরিবেশরক্ষায় মানুষের সচেতনতা গড়ে তোলার কাজ করছেন। সুইশ কিশোরীর সেই অসাধারণ উদ্যোগকে সম্মান জানিয়ে ২০২০–এর নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য তাকে মনোনীত করেছে নোবেল কমিটি। নোবেল শান্তি পুরস্কারের মনোনয়ন পেয়ে টুইটারে গ্রেটার প্রতিক্রিয়া, ‘‌এই মনোনয়নে আমি সম্মানিত ও কৃতজ্ঞ। আমরা এটা চালিয়ে যাব যতদিন লাগবে।’‌ নরওয়ের সমাজকর্মী ফ্রেডি আন্দ্রে জানালন, ‘‌আমরা গ্রেটার নাম প্রস্তাব করেছি, কারণ এখনো যদি পরিবেশ বাঁচাতে আমরা সচেষ্ট না হই, তাহলে তা যুদ্ধ, বিবাদ ও শরণার্থীদের জন্ম দেবে। থানবার্গ একটা গণ আন্দোলন শুরু করেছে, যা আমার মনে হয় শান্তির পথে একটা বিশাল অবদান।’‌
এর আগে ২০১৪ সালে ১৭ বছর বয়সে নোবেল শান্তি পুরস্কার পেয়েছিলেন মালালা ইউসুফজাই। এবার গ্রেটা থানবার্গ এই পুরস্কার পেলে সেই হবে সর্বকনিষ্ঠ নোবেল শান্তি পুরস্কারপ্রাপক।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন