টেকনাফ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন রোহিঙ্গা নিহত

কক্সবাজারে টেকনাফ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন রোহিঙ্গা নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (৫ এপ্রিল) রাত দেড়টার দিকে হ্নীলা ইউনিয়নের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শিবিরের এইচ ব্লকে হাবিরের ঘোনা পাহাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-নুর আলম (২৩), মোহাম্মদ জুবায়ের (২০) ও হামিদ উল্লাহ (২০)। তারা তিন জনই নিবন্ধিত নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শিবিরে বাসিন্দা।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলিতে তিন রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা রয়েছে। তবে এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছে।

তিনি জানান, রাতে নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পের এইচ ব্লকে হাবিরের ঘোনা পাহাড়ের নিচে অস্ত্র মজুদ রয়েছে খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাত দলের একটি গ্রুপের লোকজন পুলিশের ওপর গুলি চালায়। এতে পুলিশের তিন সদস্য আহত হন। আত্মরক্ষার্থে  পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়।

একপর্যায়ে ডাকাত দলের সদস্যরা পিছু হটে পাহাড়ে ঢুকে পড়ে। পরে পুলিশ সেখানে তল্লাশি চালালে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তিন রোহিঙ্গাকে পড়ে থাকতে দেখে। তাৎক্ষণিক তাদের উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজারে নেওয়ার জন্য বলেন। সেখানে নেয়ার পথে তারা মারা যান।

ওসি আরও জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে চারটি এলজি ও সাত রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আইনি প্রক্রিয়া চলছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন