ভারতে ‘মুসলিমরা টুপি পরে রাস্তায় বেরোতে ভয় পাচ্ছেন: কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম

মুসলিমরা টুপি পরে রাস্তায় বেরোতে ভয় পাচ্ছেন বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের স্বাধীনতার পর কলকাতার ইতিহাসে প্রথম মুসলিম মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) নদিয়ার এক নির্বাচনী সভায় অংশ নিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘এবারের ভোট ইয়ারকি মারার ভোট নয়। আনন্দ করার ভোট নয়। আজকের ভোট মোদী রামের ভোট। কালকে মাথা তুলে থাকতে পারব কিনা, তার ভোট। আমাদের টুপি পরে নামাজ পড়তে দেবে না। ইউপিতে (উত্তরপ্রদেশ) ছেলে নামাজ পরতে গেলে টুপিটা পকেটে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে মা। বজরং দল দেখলে মেরে দেবে। মসজিদে গিয়ে টুপি পরবি।’

তিনি বলেন, ‘উত্তরপ্রদেশে টুপি পরে যাওয়া মানা। বজরং দল দেখে নিলে পিটিয়ে মেরে দেবে। দাঁড়ি কেটে ফেলছে মুসলিমরা। উপরওয়ালা ছাড়া কারো কাছে মাথানত করব না। উত্তরপ্রদেশের মানুষ বলছে, গরুর চেয়ে মানুষের দাম কম। লিখে নিন, সাধারণ মানুষকে গরু খাওয়ার জন্য মেরে দিয়েছে বজরং দল।’

ফিরহাদ হাকিম ভারতের গরুর মাংস রফতানিকারকদের সঙ্গে বিজেপির সম্পর্ক রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন। বিজেপির বিরুদ্ধে দ্বি-চারিতার অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, ‘গরুর মাংসের রফতানীকারক সঙ্গীত সিং, বিজেপির বিধায়ক। আরেক রফতানিকারক শ্রীকান্ত শর্মা পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের সহ-সভাপতি। গরুর মাংস রফতানি করছে অসুবিধা নেই। কিন্তু মানুষ খেলে দোষ। কেন গরুর মাংস ব্যান হলো?’ তার দাবি, গরুর মাংস খাওয়া নিষিদ্ধ হলে রফতানিকারকরা বেশি করে রফতানি করতে পারবেন।

যদিও ফিরহাদ হাকিমের বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক বক্তৃতা দেয়ার অভিযোগ করেছে বিজেপি। ফিরহাদ হাকিমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দেয়ার চিন্তাও করছে কট্টর হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন