বাংলাদেশের প্রধান ক্বারি হলেন শাইখ আহমাদ বিন ইউসুফ

ডেইলি ইসলাম ডেস্ক

আরব লিগ কর্তৃক পরিচালিত সারা পৃথিবীর ক্বারিদের সংগঠন ‘ইত্তেহাদুল কুররা আল-আলামিয়া’ এর পক্ষ থেকে বিশ্ববিখ্যাত কারি আহমাদ বিন ইউসুফ আল-আজহারীকে বাংলাদেশের প্রধান কারি তথা শাইখুল কুররা হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে।

ইত্তেহাদুল কুররা আল আলামিয়ার প্রেসিডেন্ট, বিশ্ববিখ্যাত মিশরীয় ক্বারি ড. আহমাদ নাঈনা বাংলাদেশের কৃতী সন্তান শাইখ আহমাদ বিন ইউসুফ আল-আজহারীকে বাংলাদেশের প্রধান কারি তথা শাইখুল কুররা হিসেবে  এ নিয়োগ দেন।

বাংলাদেশের গর্ব শাইখ আহমাদ বিন ইউসুফ ২০০১ সালে বাংলাদেশেই দাওরায়ে হাদিস পাশ করেন এবং পরবর্তীতে মিসরের আল-আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ের মা’হাদুল ক্বিরাত থেকে দীর্ঘ ৮ বছর পড়াশুনা করে ১০ ক্বিরাতের উপর প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে সর্বোচ্চ সনদ অর্জন করেন। তিনি প্রথমত পৃথবীর বিভিন্ন দেশের প্রতিযোগীদের সঙ্গে বাংলাদেশের হয়ে প্রতিযোগিতা করে বিজয়ী হয়ে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছেন অতপর পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক ক্বিরাত প্রতিযোগিতাগুলোতে একমাত্র একমাত্র বাংলাদেশী বিচারক হিসেবে যোগদান করে বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকাকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন।

তিনি প্রায়ই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রাজকীয় অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিত হয়ে রাজপ্রাসাদ ও আন্তর্জাতিক সম্মেলনে কুরআনের তিলাওয়াত করেন। গত মে মাসেও তিনি তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানের আমন্ত্রণে তুরস্কে অনুষ্ঠিত ষষ্ঠ আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন ও ক্বিরাত প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসেবে যোগ দিয়েছেন। ব্রুনাই সরকারের আমন্ত্রণে গত ২৪ ফেব্রয়ারি ব্রুনাই সফরকালে দেশটির বাদশাহ সুলতান হাসান আল বলকিয়াহ’র পক্ষ থেকে তাকে বিশেষ সম্মাননাও প্রদান করা হয়।

স্বাধীনতার পর থেকে গত ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত ইত্তেহাদুল কুররা আল আলামিয়ার নিযুক্ত বাংলাদেশের প্রধান ক্বারি ছিলেন বাংলাদেশের বাংলাদেশ বেতার ও টেলিভিশনের প্রধান কারি, মাওলানা কারি মুহাম্মাদ ইউসুফ (রহ.)। গত ১৮ এপ্রিল তিনি ইন্তেকাল করলে এ পদ খালি হয়। সেই শূন্য পদে তাঁরই সুযোগ্য সন্তান শাইখ আহমাদ বিন ইউসুফ আল-আজহারীকে স্থলাভিষিক্ত করা হলো।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন