রাশিয়ার মহাকাশ অস্ত্র নিয়ে আমেরিকার উদ্বেগ

মহাকাশে ব্যবহারের জন্য রাশিয়ার নতুন নতুন অস্ত্র ও প্রযুক্তি তৈরির বিষয়ে গত মঙ্গলবার গভীর উদ্বেগ ও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। পাশাপাশি সম্প্রতি রাশিয়ার পাঠানো একটি পর্যবেক্ষক উপগ্রহ ‘অস্বাভাবিকভাবে কাজ করছে’ বলেও জানিয়েছে দেশটি।

উল্লেখ্য, মহাকাশেই উপগ্রহ ধ্বংস করে দিতে সক্ষম রাশিয়ার ‘মোবাইল লেজার সিস্টেম’ নামক প্রযুক্তি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগের মূলে রয়েছে। মহাকাশে অস্ত্র প্রতিযোগিতা বন্ধ করার লক্ষ্যে নতুন চুক্তি করতে নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ে একটি কনফারেন্সের আয়োজন করে জাতিসঙ্ঘ।

‘কনফারেন্স অন ডিজআর্মামেন্ট’ শীর্ষক এই অনুষ্ঠানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ, যাচাই ও সত্যতা নিরূপণবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ইলিম ডি এস পবলেট বলেন, মহাকাশে রাশিয়ার পাল্টা অস্ত্র প্রতিযোগিতা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য খুবই বিরক্তিকর।

অবশ্য, কনফারেন্সে যোগ দেয়া রাশিয়ার প্রতিনিধি পবলেটের মন্তব্যকে ভিত্তিহীন ও মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ গত ফেব্রুয়ারি মাসে জেনেভা ফোরামে বলেন, মহাশূন্যে অস্ত্র প্রতিযোগিতা বন্ধের বিষয়টিকে তারা অগ্রাধিকার দিচ্ছেন এবং তা হতে হবে এক দশক আগে চীন ও রাশিয়ার মধ্যে প্রণীত যৌথ খসড়া চুক্তির আলোকে।

কিন্তু মার্চ মাসেই রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন ‘পেরেসভেট মিলিটারি মোবাইল লেজার সিস্টেমসহ মহাকাশে ব্যবহারযোগ্য ছয়টি নতুন ও বৃহৎ অস্ত্র উন্মোচন করেন বলে জানান পবলেট। তিনি আরো বলেন, ‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছে এখন আরো বেশি পরিষ্কার যে, রাশিয়ার কথা ও কাজের মধ্যে কোনো মিল নেই।’

গত বছরের অক্টোবর মাসে ‘স্পেস অ্যাপারেটাস ইন্সপেক্টর’ নামে মহাকাশে একটি পর্যবেক্ষক উপগ্রহ পাঠায় রাশিয়া। এই বিষয়ের প্রতি ইঙ্গিত করে পবলেট বলেন, ‘এই উপগ্রহটি কক্ষপথে বসানো হয়েছে; আমরা শুধু এটাই জানি।’

তিনি বলেন, রাশিয়ান উপগ্রহসহ আগেকার অন্যান্য সব উপগ্রহের তুলনায় কক্ষপথে এই পর্যবেক্ষক উপগ্রহটির কার্যক্রম খুবই অসঙ্গতিপূর্ণ। এই অদ্ভুত কার্যক্রম পরিচালনাকারী উপগ্রহের বিষয়ে আমরা খুবই উদ্বিগ্ন। জেনেভায় রাশিয়ার সিনিয়র কূটনীতিক আলেক্সান্ডার দেনেকোও পবলেটের বক্তব্যকে ভিত্তিহীন ও মিথ্যা বলে উড়িয়ে দেন।

পবলেটের বক্তব্য সন্দেহ ও কল্পনাপ্রসূত বলেও মন্তব্য করেন তিনি। দেনেকো আরো বলেন, ‘সিনো-রাশিয়ান খসড়া চুক্তিতে সংশোধনের ব্যাপারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কোনো প্রস্তাব দেয়নি। আমরা দেখছি রাশিয়ার ব্যাপারে আমেরিকার পক্ষ থেকে মারাত্মক উদ্বেগ জানানো হচ্ছে।

আমেরিকান জনগণের ১০০ ভাগ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য একটি চুক্তি করতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আরো সক্রিয় হওয়া উচিত। কিন্তু তারা এই গঠনমূলক কাজটি করছে না।’

জেএস/

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন