একটি টিভি একটি ফ্যান, বিদ্যুৎ বিল ২ লাখ ৯৪ হাজার টাকা!

ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ একটি দরিদ্র পরিবারের কাল হলে দাঁড়াল। মাসে ৩০০-৫০০ টাকা বিলের জায়গায় এলো দুই লাখ ৯৪ হাজার ৬৬ টাকা!

এমন ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল পেয়ে বিপাকে পড়েছে হতদরিদ্র বাবলুর পরিবার।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতার কদমবাঁধি গ্রামের বাবলু পাত্রের পরিবারে।

একটি বাতি, একটি পাখা আর একটি টিভি রয়েছে এ দরিদ্র পরিবারে। অধিকাংশ সময়ই আবার টিভি চলে না।

এক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে টালির চালায় বসবাসরত দিনমজুর বাবলু জানান, মাসে ৩০০-৫০০ টাকা বিল আসে। সে টাকা জমা দিতেই হিমশিম খান তিনি।

তিনি আরও বলেন, তিন মাস কোনো বিল দিয়ে যায়নি বিদ্যুৎ অফিস। হঠাৎ করে সেপ্টেম্বর মাসে এসে বিল দেয় বিদ্যুৎকর্মী।

সেখানে জুন, জুলাই ও আগস্ট মিলে তিন মাসের মোট বিল আসে দুই লাখ ৯৪ হাজার টাকা।

অর্থাৎ মাসে গড়ে সাড়ে ৯৮ হাজার টাকা করে বিল এসেছে।

বাবলু পাত্রের অভিযোগ, এ ঘটনায় অনেকবার বিদ্যুৎ অফিসে গিয়েও কোনো সুরাহা হয়নি। উল্টো বিদ্যুৎকর্মীরা এসে তার ঘরের বিদ্যুৎ সংযোগ কেটে দিয়ে গেছে।

এ নিয়ে কথা বলতে গেলে এক লাখ টাকা ঘুষ দিলে এ সমস্যার সমাধান করে দেবেন বলে জানান আমলাগড়া বিদ্যুৎ অফিসের কর্মীরা।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, এ ঘটনায় মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে একবার আত্মহত্যাও করতে গিয়েছিলেন বাবলু।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম থেকে আমলাগড়া বিদ্যুৎ অফিসে যোগাযোগ করা হলে কোনো মন্তব্য না করে বিষয়টি তারা এড়িয়ে গেছেন।

জেএস/

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন