আসছে ভাঁজ করে পকেটে রাখার স্মার্টফোন

বেশ কিছুদিন ধরেই স্যামসাংয়ের ভাঁজ করা স্মার্টফোন নিয়ে প্রযুক্তি বিশ্বে গুঞ্জন চলছে। এ বছরের শুরুতে স্যামসাংয়ের মোবাইল বিভাগের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডিজে কোহ বলেছিলেন, নভেম্বর মাস নাগাদ বাজারে আসবে স্যামসাংয়ের ভাঁজ করা ফোন। সেই থেকে নতুন ফোন সম্পর্কে নানা জল্পনাকল্পনা চলছে। এবারে কোহ ওই সম্ভাব্য ফোনটি সম্পর্কে আরও তথ্য দিয়েছেন।

ডিজে কোহ ভাঁজ করা স্মার্টফোনের তথ্য নিশ্চিত করে বলেছেন, এটি হবে অভিনব ডিভাইস। যাতে ট্যাবলেট কম্পিউটার ও স্মার্টফোনের সুবিধা পাওয়া যাবে। অর্থাৎ, ব্যবহারকারী স্যামসাংয়ের ভাঁজ করা ডিভাইসটি ট্যাব হিসেবে ব্যবহার করবেন, আবার তা চাইলে ভাঁজ করে স্মার্টফোনের মতো পকেটে রাখতে পারবেন। এটি সহজে বহনযোগ্য ও একাধিক কাজে উপযোগী (মাল্টিটাস্কিং) যন্ত্র হবে।

কুয়ালালামপুরে গ্যালাক্সি এ৯ মডেলে স্মার্টফোন উদ্বোধনের সময় প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট সিনেটকে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন কোহ। তিনি বলেছেন, গ্রাহকের কাছে যখন ভাঁজ করা স্মার্টফোন অর্থবহ হয়ে উঠবে, তখনই কেবল স্যামসাং তা বাজারে ছাড়বে। অর্থাৎ, বাজার প্রস্তুত না থাকলে এ ধরনের ফোন সহজে আনবে না স্যামসাং। এ ছাড়া ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতা মানসম্মত না হলে সে ধরনের পণ্য বাজারে ছাড়া হবে না বলেও মন্তব্য করেছেন কোহ।

স্যামসাংয়ের মোবাইল বিভাগের সিইও বলেছেন, ভাঁজ করা স্মার্টফোন কোনো চটকদার পণ্য হবে না। এটি বাজারে ছাড়ার পর ছয় থেকে নয় মাসে হারিয়ে যাবে, এমন পণ্য নয়। পণ্যটি আন্তর্জাতিক বাজারে ক্রেতাদের ব্যবহারের জন্য ছাড়া হবে। ফোনটির ডিসপ্লে সম্পর্কে কোনো নির্দিষ্ট তথ্য দেননি তিনি। তবে কোহ বলেছেন, স্মার্টফোনের জন্য বড় মাপের ডিসপ্লে গুরুত্বপূর্ণ। ভাঁজ করা ফোনের ক্ষেত্রে সাড়ে ছয় ইঞ্চি মাপের ওপরে ডিসপ্লে থাকতে পারে।

ভাঁজ করা ফোনের বাজার দ্রুত বাড়বে বলে আশা করছেন স্যামসাংয়ের ওই কর্মকর্তা। ডিজে কোহ বলেছেন, ‘ভাঁজ করা ফোন নিয়ে আমি ইতিবাচক এবং আমাদের এ ধরনের ফোন দরকার।’

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন