ভোট চুরি করতেই ৩০ ডিসেম্বর তফসিল : রিজভী

ঢাকা: সরকারের কৌশলের অংশ হিসেবেই ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনের তারিখ ইসি নির্ধারণ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। আজ মঙ্গলবার সকালে নয়াপল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, ২৫ ডিসেম্বর বড়দিন এবং ৩১ ডিসেম্বর থার্টি ফার্ষ্ট নাইট থাকায় বিদেশি পর্যবেক্ষকরা যাতে নির্বাচন পর্যবেক্ষণে না আসতে পারে সে কারণেই ৩০ ডিসেম্বরকে নির্বাচনের তারিখ হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, সকল রাজনৈতিক দলের জন্য সমতল নির্বাচনী মাঠ তৈরি করতে নির্বাচনের তারিখ ১ মাস পেছানোর দাবি জানানো হয়েছে। কিন্তু নির্বাচন থেকে মাইনাস করার জন্যই বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কারাগারে রাখা হয়েছে। জনপ্রিয়তার কারণেই তার প্রতি এত হিংসা।

রিজভী আরও বলেন, কারচুপি করার জন্যই ৮০-১০০ টি আসনের ইভিএম ব্যবহার করতে চায় সরকার। ইভিএম আওয়ামী লীগের কারচুপির মেশিন, এটা সরকারের চক্রান্তের অংশ। ইভিএম বন্ধ না করলে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়।

বিরোধী দলের মতকে গুরুত্ব না দিয়ে ইসিকে দিয়ে নিজেদের এজেন্ডা বাস্তবায়ণ করছে সরকার বলেও অভিযোগ করেন রিজভী।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন