শিকাগোর হাসপাতালে বন্দুকধারীর হামলায় ৪ জন নিহত

যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো অঙ্গরাজ্যের একটি হাসপাতালে গোলাগুলিতে চারজন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে একজন পুলিশ কর্মকর্তা, হাসপাতালের চিকিৎসক ও কর্মী এবং বন্দুকধারী নিজে রয়েছেন। গতকাল সোমবার স্থানীয় সময় বেলা তিনটায় শিকাগোর মার্সি হাসপাতালে হামলার এ ঘটনা ঘটে।

আজ মঙ্গলবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও বিবিসি অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে, মেয়র রহম ইমানুয়েল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নিহত দুই নারীর একজন চিকিৎসক ও একজন ওষুধ তৈরিসংক্রান্ত কাজের সহকারী ছিলেন।

বন্দুকধারীর গুলিতে হাসপাতালে চিকিৎসক, রোগীসহ লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বন্দুকধারী হাসপাতালের পার্কিংয়ের জায়গায় গুলি ছুড়তে শুরু করেন। তাঁর গুলিতে একজন পুলিশ কর্মকর্তা ও হাসপাতালের দুই নারী কর্মী নিহত হন। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছালে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকধারীর গুলিবিনিময় হয়।

পুলিশের মুখপাত্র ও শিকাগো অগ্নিনির্বাপণ বিভাগ তাদের টুইটারে জানিয়েছে, গুলিতে স্যামুয়েল জিমেনেজ নামের একজন পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। বন্দুকধারী নিজেও মারা গেছেন। গুলিতে দুজন আহত হওয়ার পর চিকিৎসা কর্মকর্তা তাঁদের মৃত ঘোষণা করেন।

তবে বন্দুকধারী কেন এই হামলা চালালেন, সে সম্পর্কে এখনো নিশ্চিত নয় পুলিশ। পুলিশের ধারণা, প্রেমের সম্পর্ক ছিল—এমন এক নারীকে লক্ষ্য করে বন্দুকধারী এই হামলা চালিয়েছেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী একটি সাইকেলের দোকানের ব্যবস্থাপক সু জিমেনেজ বলেন, থেমে থেমে তিনি একাধিকবার গুলিবর্ষণের শব্দ শুনতে পান। একবার তিনি একসঙ্গে পাঁচটি গুলির শব্দ পেয়েছেন। পুলিশ আসার পর গুলির শব্দ থেমে যায়।

উল্লেখ্য, এ বছর যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকের গুলিতে প্রায় ১৩ হাজার মানুষ মারা গেছে। গুলিতে আহত হয়েছে ২৫ হাজারের বেশি মানুষ। এর মধ্যে দায়িত্ব পালনের সময় ২৫০ জন পুলিশ কর্মকর্তা গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
দয়া করে আপনার নাম লিখুন